Breaking News
Home / স্বাস্থ্য / ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ থেকে কৃমি নির্মূলের লক্ষ্যে ৬ – ১২এপ্রিল ২২তম কৃমি নিয়ন্ত্রণ সপ্তাহ পালিত হতে যাচ্ছে

২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ থেকে কৃমি নির্মূলের লক্ষ্যে ৬ – ১২এপ্রিল ২২তম কৃমি নিয়ন্ত্রণ সপ্তাহ পালিত হতে যাচ্ছে

মোল্লা সোহেল-

ঢাকা ক্রাইম নিউজঃ স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের অধীন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের রোগ নিয়ন্ত্রণ শাখার একটি অংশ হচ্ছে ফাইলেরিয়াসিস নির্মূল, কৃমি নিয়ন্ত্রণ ও ক্ষুদে ডাক্তার কার্যক্রম।

২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ থেকে কৃমি নির্মূলের লক্ষ্যে ৫-১৬ বছর বয়সী শিশুদের জন্য রোগ নিয়ন্ত্রণ শাখা কৃমি নিয়ন্ত্রণ কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে।

সেই ধারাবাহিকতায় আগামী ৬ – ১২এপ্রিল ২০১৯, দেশের সকল প্রকার প্রাথমিক ও মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে একযোগে ২২তম জাতীয় কৃমি নিয়ন্ত্রণ সপ্তাহ পালিত হতে যাচ্ছে।

প্রাথমিক পর্যায়ের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে উপস্থিতির মাধ্যমে ৫ -১১ বছর বয়সী দেশের সকল শিশুকে এবং মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে উপস্থিতির মাধ্যমে ১২-১৬ বছর বয়সী সকল শিশুকে ১ ডোজ কৃমি নাশক ঔষধ সেবন করানো হবে।

সারা দেশের ১,৩৩, ৯০৭টি প্রাথমিক পর্যায়ের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান (সরকারী, বেসরকারী, ফরমাল, নন-ফরমাল স্কুল, মাদ্রাসা, মক্তবসহ ২৫ রকমের) এবং ৩০,০০০ মাধ্যমিক পর্যায়ের (বিদ্যালয়, মাদ্রাসা) শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এই কর্মসূচীর আওতাভূক্ত।

২০১৯ সালের এপ্রিল মাসে ২২তম রাউন্ড কৃমি নিয়ন্ত্রণ সপ্তাহ উদ্যাপিত হতে যাচ্ছে। এবার ঔষধ সেবনকারী শিশুর কাঙ্খিত লক্ষ্যমাত্রা ৪ কোটি।

সেই ধারাবাহিকতায় আজ বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পুরাতন বিল্ডিংয়ের ২য় তলায় সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে ফাইলেরিয়াসিস নির্মূল, কৃমি নিয়ন্ত্রণ ও ক্ষুদে ডাক্তার কার্যক্রম।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন রোগ নিয়ন্ত্রণ শাখার ডেপুটি ডাইরেক্টর, এসিস্টেন্ট ডাইরেক্টর, কালা জ্বর এর ডিপিএম, এবং ফাইলেরিয়াসিস নির্মূল, কৃমি নিয়ন্ত্রণ ও ক্ষুদে ডাক্তার কার্যক্রমের ভারপ্রাপ্ত ডিপিএম ডাঃ আব্দুল্লাহ আল কাউছার, ডাঃ মোঃ মুজিবুর রহমান সহ উক্ত শাখার কর্মকর্তা ও কর্মচারীরা।

২০১৯ সালের ৬-১২ এপ্রিল সময়কালীন কৃমি নিয়ন্ত্রণ সপ্তাহ সফলভাবে বাস্তবায়নের জন্য স্থানীয় জেলা ও উপজেলা প্রশাসন, সিটি কর্পোরেশন, সমাজ সেবা অধিদপ্তর, মাদ্রাসা বোর্ড, পৌরসভা, সরকারী, বেসরকারী প্রতিষ্ঠানসমূহ, স্কাউট, সাংবাদিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক, ধর্মীয় বা সেবাধর্মী প্রতিষ্ঠানকে সম্পৃক্ত করে একযোগে কাজ করতে হবে।

তাই সর্বস্তরের জনগণের অংশগ্রহণের মাধ্যমে কার্যক্রমটি সফল হোক।

About dhaka crimenews

Check Also

মরণব্যাধি ক্যান্সার প্রতিরোধ সম্ভব

বিশ্বে প্রতি ৯ জনে ১ জন ক্যান্সারে আক্রান্ত। ১২ বছর পর এর ভয়াবহতা আরও বাড়বে। ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *