Breaking News
Home / জাতীয় / অর্ধেক চালকেরই লাইসেন্স নেই

অর্ধেক চালকেরই লাইসেন্স নেই

বর্তমানে সারা দেশে নিবন্ধিত যানবাহনের সংখ্যা ৩৮ লাখের বেশি। কিন্তু বিভিন্ন শ্রেণির যানবাহনের জন্য লাইসেন্সধারী চালক আছেন প্রায় ২০ লাখ। অর্থাৎ ৪৭ শতাংশের বেশি গাড়ি চলছে ‘ভুয়া’ চালক দিয়ে।

Eprothom Aloঅন্যদিকে দেশের জাতীয় ও আঞ্চলিক মহাসড়কের ৬২ শতাংশেই যথাযথ সাইন-সংকেতের ব্যবস্থা নেই। দেশে ফিটনেসবিহীন যানবাহনের সংখ্যাও প্রায় ৫ লাখ। সড়ক ব্যবস্থাপনা নিয়ে কাজ করা বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সড়ক নিরাপত্তা নিশ্চিত করার প্রধান অনুষঙ্গ সড়ক, যানবাহন এবং চালক—এর কোনোটিই ত্রুটিমুক্ত নয়। ফলে সড়ক দুর্ঘটনা নিয়ন্ত্রণে আসছে না।

গত বছরের আগস্টে নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের পরিপ্রেক্ষিতে সরকারের বিভিন্ন মহল থেকে নানা প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়। অনেক দিন আটকে থাকা সড়ক পরিবহন আইনটি দ্রুততার সঙ্গে পাস করা হয়। কিন্তু অধিকাংশ প্রতিশ্রুতির বাস্তবায়ন না হওয়ায় সড়কে শৃঙ্খলা ফিরছে না, দুর্ঘটনায় মৃত্যুর মিছিলও থামছে না।

বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতির হিসাবে, গত চার বছরে দেশে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন ২৯ হাজার ৩১৫ জন। অর্থাৎ প্রতিদিন গড়ে ২০ জনের মৃত্যু হয়েছে সড়কে। এর মধ্যে ২০১৮ সালে মারা গেছেন ৭ হাজার ২২১ জন। গতকাল শুক্রবারও দেশের বিভিন্ন স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় মারা গেছেন ১৬ জন।

গত মঙ্গলবার রাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকার সামনে বাসচাপায় মারা যান বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসের (বিইউপি) শিক্ষার্থী আবরার আহমেদ চৌধুরী। আবরারকে চাপা দেওয়া বাসচালকেরও যথাযথ লাইসেন্স ছিল না। আবরারের মৃত্যুর মধ্য দিয়ে সড়কে শৃঙ্খলা আনার ব্যর্থতার বিষয়টি আবার আলোচনায় এসেছে। পুলিশ, পরিবহনমালিকেরা আগের প্রতিশ্রুতিগুলোই আবারও দিতে শুরু করেছেন।

লাইসেন্সহীন চালকের ছড়াছড়ি
বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) হিসাব বলছে, গত ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত দেশে নিবন্ধিত যানবাহন আছে ৩৮ লাখ ৮৫ হাজার ৪২২টি। আর বিআরটিএ সূত্র বলছে, বিভিন্ন শ্রেণির যানবাহনের জন্য চালক লাইসেন্স আছে প্রায় ২৮ লাখ। এর মধ্যে একই লাইসেন্সে একজন ব্যক্তি মোটরসাইকেল ও অন্য যানবাহন চালান। এদের বাদ দিলে চালকের সংখ্যা দাঁড়ায় প্রায় ২০ লাখ। অর্থাৎ ১৮ লাখ যানবাহন ‘ভুয়া’ চালক দিয়ে চলছে।
১৭ মার্চ থেকে ট্রাফিক সপ্তাহ পালন শুরু করেছে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) ট্রাফিক বিভাগ। ট্রাফিক সপ্তাহে প্রতিদিন বিশেষ অভিযান চালানো হচ্ছে। ডিএমপি ট্রাফিকের উপকমিশনার (পশ্চিম) লিটন কুমার সাহা প্রথম আলোকে বলেন, অভিযানে চালকের ড্রাইভিং লাইসেন্স না থাকায় বেশ কিছু বাস আটক করা হয়েছে। আবার হালকা যানের লাইসেন্স নিয়ে অনেক চালক বাস চালাচ্ছেন, এমনও পাওয়া যাচ্ছে।

যথাযথ সাইন-সংকেত নেই
সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের (সওজ) তথ্য অনুযায়ী, প্রতিষ্ঠানটির অধীনে মোট সড়ক আছে ২১ হাজার ৩০২ কিলোমিটার। এর মধ্যে জাতীয় ও আঞ্চলিক মহাসড়ক ৮ হাজার ৮৬০ কিলোমিটার। প্রতিষ্ঠানটির নিজস্ব জরিপ বলছে, জাতীয় ও আঞ্চলিক মহাসড়কের মধ্যে ৫ হাজার ৫০০ কিলোমিটার সড়কে যথাযথ সাইন-সংকেত নেই। কোথাও কোথাও থাকলেও তা ত্রুটিপূর্ণ। অর্থাৎ ৬২ শতাংশ জাতীয় ও আঞ্চলিক মহাসড়কে যথাযথ সাইন-সংকেত নেই। তবে যেসব সড়কে সঠিক সাইন-সংকেত নেই এবং দুর্ঘটনার ঝুঁকি আছে, সেসব সড়ক উন্নয়নে ৬৩২ কোটি টাকার একটি প্রকল্প নিয়েছে সওজ।

ফিটনেসবিহীন যানের দৌরাত্ম্য
বিআরটিএ সূত্র বলছে, বর্তমানে ফিটনেসবিহীন যানবাহনের সংখ্যা ৫ লাখের কাছাকাছি। মোটরযান আইনে ফিটনেস সনদ দেওয়ার আগে অর্ধশতাধিক কারিগরি ও বাহ্যিক দিক বিবেচনা করতে হয়। কিন্তু একজন মোটরযান পরিদর্শক দিনে শ খানেক যানের ফিটনেস সনদ দিয়ে থাকেন। ফলে যেসব যানবাহন সনদ পাচ্ছে, সেগুলোও যে চলার উপযুক্ত, তা জোর দিয়ে বলা যাবে না।
বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্যাহ প্রথম আলোকে বলেন, সড়কে শৃঙ্খলা না ফেরাতে পারার দায় কম-বেশি সবার। তবে মালিকদের পক্ষ থেকে আন্তরিকতার ঘাটতি নেই। বিআরটিএর যানবাহনের ফিটনেস যাচাই করার সক্ষমতা বাড়াতে হবে। দক্ষ চালকের সংকট কাটাতে চালক প্রশিক্ষণ একাডেমি গড়তে হবে এবং লাইসেন্স প্রদান প্রক্রিয়া আরও স্বচ্ছ করতে হবে।

About dhaka crimenews

Check Also

আওয়ামী লীগ ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত সোনার বাংলাদেশ গড়তে কাজ করে যাচ্ছে

মোল্লা সোহেল- ঢাকা ক্রাইম নিউজ: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত সোনার বাংলাদেশ গড়তে ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *