Breaking News
Home / জাতীয় / রণদা প্রসাদ সাহা স্বর্ণপদক পাচ্ছেন ৪ গুণী, দেবেন প্রধানমন্ত্রী

রণদা প্রসাদ সাহা স্বর্ণপদক পাচ্ছেন ৪ গুণী, দেবেন প্রধানমন্ত্রী

কুমুদিনীর ৮৬ তম বর্ষপুতি উপলক্ষে এ বছর শহীদ দানবীর রনদা প্রসাদ সাহা স্মারক সম্মাননা স্বর্ণপদক পাচ্ছেন চারজন গুণী ব্যক্তি। আগামীকাল বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে কুমুদিনী কমপ্লেক্স ও ভারতেশ্বরী হোমসে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত হয়ে এ সম্মাননা তুলে দেবেন। এতে বিশেষ অতিথি থাকবেন প্রধানমন্ত্রীর ছোট বোন শেখ রেহেনা।

কুমুদিনী পরিবারের কর্নধার রাজিব প্রসাদ সাহা ও পরিচালক (শিক্ষা) একুশে পদকপ্রাপ্ত প্রতিভা মুৎসুদ্দি বুধবার জানান, এ বছর কুমুদিনী পরিবারের পক্ষ থেকে সম্মাননা ও স্মারক স্বর্ণপদক দেওয়া হচ্ছে হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী (মরনোত্তর), বিদ্রোহী ও জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম (মরনোত্তর), শিল্পী সাহাবুদ্দিন এবং নজরুল গবেষক অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম।
তিনি আরও জানান, হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর পক্ষে স্মারক সম্মাননা ও স্বর্ণপদক গ্রহণ করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছোট বোন ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছোট মেয়ে শেখ রেহেনা এবং বিদ্রোহী ও জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের পক্ষে সম্মাননা এবং স্বর্ণপদক গ্রহণ করবেন তার নাতনী খিলখিল কাজী।

প্রতিভা মুৎসুদ্দি জানান, দানবীর রনদা প্রসাদ সাহা ছিলেন নিবেদিত প্রাণ একজন মহান ব্যক্তি। তিনি নিজের জন্য কিছু রেখে যাননি। তার সমস্ত সম্পদ দেশ ও দেশের মানুষের জন্য দান করে গেছেন। তার সেবাধর্মী প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে কুমুদিনী হাসপাতাল, কুমুদিনী উইমেন্স মেডিকেল কলেজ, নারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কুমুদিনী নার্সিং স্কুল অ্যান্ড বিএসসি নার্সিং কলেজ, ভারতেশ্বরী হোমস, টাঙ্গাইল কুমুদিনী মহিলা কলেজ, মির্জাপুর ডিগ্রি কলেজ, মির্জাপুর এস কে পাইলট বালক ও বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, মানিকগঞ্জ দেবেন্দ্র কলেজ, রনদা প্রসাদ সাহা বিশ্ববিদ্যালয়সহ বহু প্রতিষ্ঠান রেখে গেছেন।

১৯৭১ সালের মহান স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় ৭ মে দানবীর রনদা প্রসাদ সাহা ও তার একমাত্র পুত্র ভবানী প্রসাদ সাহা রবিকে পাকিস্তানী হানাদার বাহিনী ও এ দেশীয় রাজাকার আলবদর বাহিনী ধরে নিয়ে নির্মম ভাবে হত্যা করেছে। তার সেবা মূলক প্রতিষ্ঠানকে বাঁচিয়ে রাখতে এবং রনদা প্রসাদ সাহাকে স্মরণ করতেই ২০১৫ সাল থেকে কুমুদিনী পরিবার দেশ ও বিদেশের গুনী ব্যক্তিদের রনদা প্রসাদ সাহা স্মারক সম্মাননা প্রদান শুরু করে।

২০১৫ সালে ইমেরিটাস অধ্যাপক শিক্ষাবিদ ড. আনিসুজ্জামান, বারডেম হাসপাতালের প্রতিষ্ঠাতা জাতীয় অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ ইব্রাহিম(মরনোত্তর) ও অধ্যাপক ডা. এ কে আজাদ খানকে সম্মাননা স্মারক স্বর্ণপদক তুলে দেওয়া হয়। ২০১৬ সালে কবি বেগম সুফিয়া কামাল(মরনোত্তর), নারী নেত্রী অ্যাডভোকেট সুলতানা কামাল, অধ্যাপক আবু সাইদ এবং গণমাধ্যম ব্যক্তিত্ব শাইখ সিরাজকে সম্মাননা স্মারক স্বর্ণপদক তুলে দেওয়া হয়। ২০১৭ সালে শহীদ ধীরেন্দ্রনাথ দত্ত(মরনোত্তর), স্যার ফজলে হাসান আবেদ এবং অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ জাফর ইকবালকে স্মারক সম্মাননা স্বর্ণপদক প্রদান করা হয়।

এদিকে টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে কুমুদিনী হাসপাতাল এবং নারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ভারতেশ্বরী হোমসে প্রথম বারের মত আসছেন বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে পুরো কুমুদিনী কমপ্লেক্স নানা সাজে সজ্জিত করাসহ কঠোর নিরাপত্তার ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। কমপ্লেক্সের ভারতেশ্বরী হোমসের সবুজ চত্বরে এ অনুষ্ঠান হবে।

টাঙ্গাইল জেলা প্রশাসক মো. শহীদুল ইসলাম ও পুলিশ সুপার সঞ্চিত কুমার রায় জানান, প্রধানমন্ত্রীর আগমন উপলক্ষে সব ধরনের নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সেনাবাহিনী, র‌্যাব, এনএসআই, ডিএসবি, ডিবি, পুলিশ, আনসার ও বিজিবিসহ সকল আইনশৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনী কাজ করছেন।

About dhaka crimenews

Check Also

লাইফ সাপোর্টে কণ্ঠশিল্পী সুবীর নন্দী

জনপ্রিয় সঙ্গীত শিল্পী সুবীর নন্দীকে লাইফ সাপোর্টে নেয়া হয়েছে। গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় রোববার রাত ১০টার ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *