Breaking News
Home / স্বাস্থ্য / রক্তদানের যত উপকারিতা

রক্তদানের যত উপকারিতা

রক্তের প্রয়োজনীয়তার শেষ নেই। অসুখ-বিসুখ কিংবা দুর্ঘটনাজনিত কারণে অনেকেরই রক্তের প্রয়োজন হয়। গোটা বিশ্বে অনেক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন আছে যারা পরীক্ষার মাধ্যমে মানুষের কাছ থেকে বিশুদ্ধ রক্ত সংগ্রহ করে অসুস্থদের কাজে লাগান।রক্তদান আপনার ধারণার চেয়েও বেশি উপকারী।

রেড ক্রস সোসাইটির তথ্য অনুযায়ী, মানবদেহে লোহিত রক্তকণিকা সাধারণত ৩ থেকে ৪ মাস থাকে। এ কারণে ৩ মাস আগের সঙ্গে বর্তমানের লোহিতকণিকা এক হবে না। এজন্য এটা ভাবা ঠিক নয় রক্তদান করলেই শরীরে রক্তের ঘাটতি দেখা দেবে। বরং রক্তদান করলে বেশ কিছু স্বাস্থ্য উপকারিতা পাওয়া যায়। যেমন-

১. শরীরে অতিরিক্ত আয়রন থাকলে হৃদরোগ ও স্ট্রোকের ঝুঁকি থাকে।বিশেষজ্ঞরা বলছেন, প্রতিমাসে পিরিয়ড হওয়ার কারণে নারীদের হৃদরোগ তুলনামুলকভাবে কম হয় ।এ কারণে পুরুষদের প্রতি ৩ থেকে ৪ মাস পর পর রক্তদানের পরামর্শ দিয়েছেন তারা। বিশেষজ্ঞদের মতে, এতে শরীরে আয়রনের পরিমাণ ঠিক থাকবে।

২. এক গবেষণায় দেখা গেছে, নিয়মিত রক্তদান করলে ক্যান্সার হওয়ার ঝুঁকি কমে যায়। কারণ রক্তদান করলে শরীরে প্রদাহের আশঙ্কা কমে এবং অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের পরিমাণ বাড়ে।

৩. নিয়মিত রক্তদান করলে শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ ভাল ভাবে কাজ করে।এতে আয়ুও বাড়ে।

৪. রক্তদান করলে পুরো শরীর উজ্জীবিত হয়। রক্তদানের পর রক্তের লোলিতকণিকাগুলো প্রতিবার পুনর্ব্যবহৃত করতে সক্ষম হয়, শরীর নতুন লোহিতকণিকা উৎপাদন করার অনুমতি দেয়।

৫. একবার রক্তদান করলে ৬৫০ ক্যালরি ঝরে যায়। এতে ওজনও কমে। একজন সুস্থ মানুষ ৫৬ দিন পর পর রক্ত দিতে পারেন। এতে শরীর থেকে কোলেস্টেরলের পরিমাণও কমে যায়।

About dhaka crimenews

Check Also

হাঁপানি কেন হয়

হাঁপানি একটি শ্বাসকষ্টজনিত রোগ। এটি নিরাময়যোগ্য নয়; কিন্তু সঠিকভাবে নিয়ম মেনে ও ওষুধ খেলে সহজেই ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *