Breaking News
Home / জাতীয় / আরও ১০ জেলায় নতুন ডিসি

আরও ১০ জেলায় নতুন ডিসি

স্টাফ রিপোটার: আরও ১০ জেলায় নতুন জেলা প্রশাসক (ডিসি) নিয়োগ দিয়েছে সরকার। বৃহস্পতিবার জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে জয়পুরহাট, গাইবান্ধা, পঞ্চগড়, ঠাকুরগাঁও, পটুয়াখালী, চাঁদপুর, দিনাজপুর, মেহেরপুর, কুড়িগ্রাম ও সিলেটে ডিসি নিয়োগ দিয়ে আদেশ জারি করা হয়েছে।

এর আগে গত ২৩ সেপ্টেম্বর ১০ জেলায় ডিসি পদে পরিবর্তন আনা হয়েছিল। সরকারের উপ-সচিব পদ মর্যাদার কর্মকর্তাদের জেলা প্রশাসক নিয়োগ দেয়া হয়। জেলা পর্যায়ে ডিসি কেন্দ্রীয় সরকারের প্রতিনিধিত্ব করেন। জাতীয় নির্বাচনের প্রায় তিন মাস আগে মাঠ প্রশাসনের গুরুত্বপূর্ণ পদে দুই দফায় বড় ধরণের রদবদল আনা হলো।

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের পরিচালক অতুল সরকারকে জয়পুরহাট, ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রীর একান্ত সচিব (পিএস) সেবাস্টিন রেমাকে গাইবান্ধা, স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের উপসচিব সাবিনা ইয়াসমিনকে পঞ্চগড়, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের উপসচিব আবেদ হোসেনকে ঠাকুরগাঁও, সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের উপসচিব মো. মতিউল ইসলাম চৌধুরীকে পটুয়াখালীর ডিসি নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

এছাড়া স্থানীয় সরকার বিভাগের উপসচিব কে এম কামরুজ্জামান সেলিম চাঁদপুর, স্থানীয় সরকার বিভাগের সংযুক্ত উপসচিব মাহমুদুল আলম দিনাজপুর, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় সংযুক্ত উপসচিব আতাউল গনি মেহেরপুর, ভূমিমন্ত্রীর একান্ত সচিব (পিএস) মোহাম্মদ জাকির হোসেন কুড়িগ্রাম ও জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় উপসচিব কাজী এমদাদুল ইসলাম সিলেটের ডিসি হয়েছেন।

ঠাকুরগাঁয়ের ডিসি মো. আখতারুজ্জামানকে রাজউকের পরিচালক, চাঁদপুরের ডিসি মো. মাজেদুর রহমান খানকে জীবন বীমা কর্পোরেশনের জেনারেল ম্যানেজার, দিনাজপুরের ডিসি আবু নাঈম মুহাম্মদ আব্দুস সবুরকে রাজউকের পরিচালক, মেহেরপুরের ডিসি মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেনকে পায়রা বন্দর কর্তৃপক্ষের যুগ্ম-পরিচালক হিসেবে বদলি করা হয়েছে।

জয়পুরহাটের ডিসি মোহাম্মদ হোসেন সুরক্ষা সেবা বিভাগের উপসচিব, গাইবান্ধার ডিসি গৌতম কুমার পালকে স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের উপসচিব, সিলেটের ডিসি নুমেরী জামানকে স্থানীয় সরকার বিভাগের উপসচিব, কুড়িগ্রামের ডিসি সুলতানা পারভীনকে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উপসচিব এবং পটুয়াখালীর ডিসি মো. মাছুমুর রহমানকে স্থানীয় সরকার বিভাগের উপসচিব নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

ডিসি জেলার সাধারণ প্রশাসনিক কার্যক্রম, জেলা ম্যাজিস্ট্রেট হিসাবে জেলার আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা এবং কালেক্টর হিসেবে ভূমি ব্যবস্থাপনা বিষয়গুলি দেখে থাকেন। এছাড়া নির্বাচিত সরকারের বিশেষ কর্মসূচি এবং চলমান সকল উন্নয়নমূলক কাজে জেলা প্রশাসক তদারকি করে থাকেন।

About dhaka crimenews

Check Also

৪০তম বিসিএসের আবেদন শুরু

স্টাফ রিপোটার: ৪০তম বিসিএসে অংশগ্রহণ করতে ইচ্ছুক প্রার্থীদের অনলাইন আবেদন শুরু হয়েছে। আজ রবিবার সকাল ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *