Home / ক্রাইম নিউজ / সুনামগঞ্জে পঙ্গু মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের উপর হামলার ঘটনায় থানায় মামলা

সুনামগঞ্জে পঙ্গু মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের উপর হামলার ঘটনায় থানায় মামলা

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি, জাহাঙ্গীর আলম ভূঁইয়া-
সুনামগঞ্জে পঙ্গু মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের উপর হামলার ঘটনায় থানায়
মামলার অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। শনিবার সুনামগঞ্জ সদর
উপজেলার রঙ্গারচর ইউনিয়নের ছমেদনগর গ্রামের মৃত মহব্বত আলীর
পুত্র পঙ্গু মুক্তিযোদ্ধা মোঃ শানুর মিয়া বাদী হয়ে সুনামগঞ্জ সদর
মডেল থানা অফিসার ইনচার্জ বরাবরে প্রতিপক্ষের ১২জন
সন্ত্রাসীর বিরুদ্ধে এ অভিযোগটি দায়ের করেছেন। মামলার
অভিযোগে কান্দি ছমেদনগর গ্রামের মৃত রুশমত আলীর পুত্র আব্দুল
করিম, আব্দুছ ছোবহান,আব্দুর রহমান,মজিবুর রহমান,নাজিম
উদ্দিন,আব্দুল করিমের পুত্র আলী আহমদ ওরফে জুলহাস,আব্দুছ
ছোবহানের পুত্র আব্দুল আলী,হেলিম,আব্দুর রহমানের পুত্র হযরত
আলী,মোহাম্মদ আলী,মৃত হোসেন মিয়ার পুত্র আব্দুল ছত্তার ও
মোল্লাপাড়া গ্রামের মৃত আব্দুল শহীদের পুত্র খোকন মিয়া
খোকাকে আসামী করা হয়েছে। অভিযোগে প্রকাশ,গত ১লা
মার্চ বৃহস্পতিবার বিকাল সাড়ে ৪টা হতে হতে সন্ধ্যা সাড়ে
৬টা পর্যন্ত স্থানীয় কানলার হাওরস্থ বনগাঁও ছড়া এবং বনগাঁও
বাজারে দুদফা হামলা চালিয়ে মুক্তিযোদ্ধা শাহনূর মিয়ার স্ত্রী
আম্বিয়া খাতুন,পুত্র হাবিবুর রহমান,সাজিজুর রহমান,আজিজুল
ইসলাম,মুক্তিযোদ্ধার নাতি শিশু শাহ আলম ও আল জামিনকে কাঠের
রুইল,লোহার রড ও বাঁশের লাঠি দিয়ে এলোপাতাড়ী মারপিঠক্রমে
রক্তাক্ত জখম করে প্রতিপক্ষীয়রা। ঘটনার পর আহতদেরকে জেলা সদর
হাসপাতালের জরুরী বিভাগে ডাঃ মন্তোষ রঞ্জন চন্দের তত্বাবধানে
চিকিৎসা দেয়া হয়। একইদিন জায়গা সংক্রান্ত পূর্ব বিরোধের
জের ধরে গ্রামের নিরীহ কৃষক আব্দুর রহীমের উপর হামলা করে করিম
বাহিনীর মাতাল সন্ত্রাসী একাধিক মাদক মামলার আসামী আব্দুল
আলী ও তার সহযোগীরা। প্রাণভয়ে আহত আব্দুর রহীম জেলা সদর
হাসপাতালে এসে চিকিৎসাসেবা গ্রহন করতে পারেননি। এর
আগে ব্যবসায়ীর এক অপ্রাপ্ত বয়স্ক কিশোরী কন্যাকে
জোরপূর্বক অপহরণ করে বিবাহের অপচেষ্টা চালায় করিমের ভাতিজা
বখাটে হযরত আলী। এতে বাধা দেয়ায় গত ২৪ ফেব্রুয়ারী শনিবার

রাত ১১টায় বনগাও বাজারস্থ চায়ের দোকানে হামলা করে কিশোরীর
পিতা ব্যবসায়ী ইবাদুর রহমান (৫৫) এর উপর গুরুতর হামলা ও তার
দোকান লুঠতরাজ করে ঐ সন্ত্রাসীরা। ঘটনার পর ৩রা মার্চ পর্যন্ত
জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকেন জখমী ব্যবসায়ী
ইবাদুর রহমান।
অভিযোগে আরো উল্লেখ করা হয়, পঙ্গু মুক্তিযোদ্ধা ও অবসরপ্রাপ্ত
ইপিআর সদস্য শাহনূর মিয়ার উপর হামলাকারীরা সন্ত্রাসী আব্দুল
করিম বাহিনীর সদস্য। এই বাহিনীর মোকাবেলা করার সাধ্য এলাকার
কারো নেই। এমনকি ইউপি চেয়ারম্যানসহ কোন কোন
নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিরাও এই বাহিনীর ভয়ে ভীত সন্ত্রস্থ
থাকেন। গত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে স্থানীয় বনগাঁও সরকারী
প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রে প্রিসাইডিং অফিসারসহ
পুলিশ সদস্যদের উপর উক্ত করিম বাহিনী বর্বরোচিত হামলা করে।
১৯৯১ইং সনে কানলার হাওরে দায়িত্বরত আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর ১৬
জন পুলিশ সদস্যকে উক্ত করিম বাহিনী তাদের নিজের বাড়ীতে
আটক রেখে আগ্নেয়াস্ত্র ছিনতাই করে নেয়। পরে
ম্যাজিস্ট্রেট,পুলিশ সুপার ও ইউপি চেয়ারম্যানসহ উর্ধতন
কর্তৃপক্ষ ঘটনাস্থলে গিয়ে অস্ত্রসহ পুলিশ সদস্যদের উদ্ধার করে
পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন।
উক্ত করিম বাহিনীর বিরুদ্ধে নিরীহ বাউল শিল্পী আব্দুল কাইয়্যুম
বাদী হয়ে সুনামগঞ্জ সদর থানার মামলা নং ৬ (জিআর ৮৮/২০১৭)
তাং ৮/৩/২০১৭ইং দায়ের করেন। এ মামলায় তাদের বিরুদ্ধে
অভিযোগপত্র নং ১০১ তাং ৩১/৩/২০১৭ইং ধারা
৩৭৯/৩২৩/৩৭৯/৪২৭/৫০৬দ:বি: দাখিল করেন তদন্ত কর্মকর্তা এসআই
নিরস্ত্র মোঃ নুর উদ্দিন বিপি নং ৮৩০২০৯৮২৮২। সুনামগঞ্জ থানার
মামলা নং ১৩ (জিআর ১৩৩/২০১০) তাং ১৬/১০/২০১০ইং ধারা
৩০৭/৩২৩/৩৫৪/৩৮০/৪২৭/৫০৬ দ:বি:, মামলা নং ৯ (জিআর ৯/২০০৫)
তাং ১৫/১/২০০৫ইং ধারা ৩০৭/৩২৪/৩৫৪/৩৮০/৪২৭/৪৪৮/৫০৬ দ:বি: এর
চার্জসীটভুক্ত আসামীও উক্ত করিম বাহিনী। অভিযোগটি
এফআইআরক্রমে করিম বাহিনীর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা
গ্রহনের বিষয়ে জানতে চাইলে সদর থানা ওসি (তদন্ত) আব্দুল্লাহ
আল মামুন বলেন,অভিযোগটি তদন্তের জন্য এসআই মোশাররফ
হোসেনকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। তদন্তের পর এ ব্যাপারে
আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

About dhaka crimenews

Check Also

গাজীপুরে প্রকাশ্য দিবালোকে মরিচের গুঁড়া ছিটিয়ে কুপিয়ে হত্যা

গাজীপুর সিটি কর্পোরেশেনের কাউলতিয়ার জেলারপাড় নাগপাড়া এলাকায় বৃহস্পতিবার দুপুরে মরিচের গুঁড়া ছিটিয়ে প্রকাশ্য দিবালোকে দা ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *