Breaking News
Home / জাতীয় / ৩৯ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদে নৌকা মার্কার মনোনয়ন প্রত্যাশী আলহাজ্ব শহীদুল আমিন খন্দকার

৩৯ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদে নৌকা মার্কার মনোনয়ন প্রত্যাশী আলহাজ্ব শহীদুল আমিন খন্দকার

 স্টাফ রিপোর্র্টার : আসন্ন ঢাকা উত্তর সিটি উপ-নির্বাচনে মেয়র পদে সরাসরি প্রার্থী মনোনয়ন দেয়ার পাশাপাশি ১৮টি কাউন্সিলর পদেও দলীয় নেতাকে সমর্থন দিতে যাচ্ছে  ক্ষমতাসীন দল আওয়ামীলীগ। আগামী ২৬ শে ফেব্রুয়ারী ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র পদে উপনির্বাচন করার সিদ্ধান্তও নিয়েছে নির্বাচন কমিশন। একই সঙ্গে নতুন যুক্ত হওয়া ১৮টি ওয়ার্ড ও ছয়টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে এবং ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনে (ডিএনসিসি) যুক্ত হওয়া নতুন ১৮টি ওয়ার্ড ও ছয়টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডেও নির্বাচন হবে। ৯ ই জানুয়ারী এসব নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হবে বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশন।
সূত্রমতে, ডিএনসিসি নির্বাচনে কাউন্সিলের ৩৯ নং ওয়ার্ডে আওয়ামীলীগ থেকে মনোনয়নের দ্বারপ্রান্তে  রয়েছেন ঢাকা মহানগর উত্তর ভাটারা থানা আওয়ামীলীগের কান্ডারী  রাজপথের সাহসী যোদ্ধা, বিশিষ্ঠ রাজনীতিবীদ ও শিল্পপতি, ভাটারা থানা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব শহীদুল আমিন খন্দকার।
ভাটারা এলাকায় খন্দকার বংশের যথেষ্ঠ সুনাম ও খ্যাতী রয়েছে। ছোট বেলা থেকেই তিনি তার পূর্ব পুরুষগনের মত আওয়ামীলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত রয়েছে। যেমনি আওয়ামীলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত ছিল তার পিতা মরহুম আলহাজ্ব আমিন উদ্দিন খন্দকার। যিনি আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই তৎকালীন ঢাকা মহা নগর আওয়ামীলীগের সদস্য ও বৃহত্তর সাতারকুল ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি এবং ঢাকা মহানগর আওয়ামীলীগের মৃত্যুর পূর্ব পর্যন্ত উপদেষ্টা হিসেবে ছিলেন। তাছাড়া ভাটারা এলাকায় মরহুম আলহাজ্ব আমিন উদ্দিন খন্দকারের নামে বিভিন্ন সড়ক ও মার্কেটের নাম করণ করা হয়েছে। এলাকায় তিনি অন্যরকম সম্মানে ভূষিত ছিলেন। তেমনি তার পূত্র আলহাজ্ব শহীদুল আমিন খন্দকারও ভাটারায় এলাকায় একজন রাজনৈতিক সম্মানিত ব্যক্তি। তিনি এলাকায় বিভিন্ন সামাজিক ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বহু পদে অধিষ্ঠিত রয়েছেন। যেমন বাইতুন নূর জামে মসজিদের সহ-সভাপতি,, মাদ্রাসা আশরাফিয়া ও এতিমখানার সাধারণ সম্পাদক, হাজী আব্দুস সাত্তার জামে মসজিদের প্রধান উপদেষ্টা।  অত্র এলাকার লোকজন বিভিন্ন ধর্মীও অনুষ্ঠানের মধ্যে  অন্যতম বিশেষ করে বাৎসরিক ওয়াজ মাহফিলে আলহাজ্ব শহীদুল আমিন খন্দকার সম্মানিত ব্যক্তি মনে করে তাকে প্রধান অতিথি হিসেবে আমন্ত্র্রন করে।  ৩৯ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের অন্যান্য মনোনয়ন প্রত্যাশী নেতাকর্মীদের চেয়ে বর্তমানে আলহাজ্ব শহীদুল আমিন খন্দকার নাম সবার মুখে মুখে রয়েছে তিনি পেতে পারেন ৩৯ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের নৌকার বৈঠা এমনটাই আশা ৩৯ নং ওয়ার্র্ডবাসীর। তিনি সংগঠনের দিক থেকেও অনেকটা এগিয়ে রয়েছে। ভাটারা থানার অর্ন্তগত ৩৯ নং ওয়ার্ডে তার জনপ্রিয়তার কোন বিকল্প নেই । তার নামে খিলবাড়ীরটেক, বোডঘাট, নুরেরচালা, সাইদনগর একশত ফিটে রং বেরং এর পোষ্টার, ব্যানার ফেস্টুনে ভরিয়ে দিয়েছে  আওয়ামীলীগের তৃণমূল নেতাকর্মীরা। এ থেকে বোঝা গেছে ৩৯ নং ওয়ার্ডবাসী তার পাশে আছে এবং থাকবে। মাদক ব্যবসা নির্মূল করার লক্ষে তিনি এলাকায় দীর্ঘ দিন যাবত কাজ করে যাচ্ছেন। তাকেই মনোনয়ন দেয়া উচিত বলে মনে করেন ৩৯ নং ওয়ার্ডবাসী। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে আরো শক্তিশালী করার লক্ষে দীর্ঘ দিন যাবত নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। ৩৯ নং ওয়ার্ডে তিনিই মনোনয়ন পাওয়ার যোগ্য বলে মনে করেন অত্র এলাকার আওয়ামীলীগের তৃণমূল নেতাকর্মীরা। তাই, তাকে মনোনয়ন দিলে ঐক্যবন্ধ হয়ে তার সাথে কাজ করবেন বলে জানিয়েছেন আওয়ামীলীগের তৃণমূলের অনেক নেতাকর্মী।এ ব্যাপারে ভাটারা ইউনিয়ন পরিষদের ৭নং ওয়ার্ড মেম্বার হাবীবুর রহমান হারমিনের কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান, আলহাজ্ব শহীদুল আমিন খন্দকার একজন ভাল মানুষ। বাড্ডা ও ভাটারার মধ্যে তিনি একজন সৎ রাজনীতিবীদ, তিনিই মনোনয়ন পাওয়ার যোগ্য ব্যক্তি.  এ ব্যাপারে আলহাজ্ব শহীদুল আমিন খন্দকারের নিকট জানতে চাইলে তিনি জানান, জনগণ আমাকে ৩৯ নং ওয়ার্ড নির্বাচিত কাউন্সিলর হিসেবে দেখতে চায়, তাই তাদের কথা বিবেচনা করেই আমি ৩৯ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদে প্রতিদ্বন্ধীতা করব। তিনি আরো বলেন, হাই কমান্ডের প্রতি আমার অগাধ বিশ্বাস রয়েছে সংগঠনের দিক ও এলাকার জনগণের দাবীর কথা বিবেচনা করে আমাকেই মনোনয়ন দিবে বলে আমি আশাবাদী। তিনি বর্তমানে ঢাকা-১১ আসনের সংসদ সদস্য মাননীয় এমপি মহোদয় বীরমুক্তিযোদ্ধা একেএম রহমত উল্লাহর রাজনীতির সাথে জড়িত রয়েছেন। তিনি সবার কাছে দোয়া প্রার্থী।

About dhaka crimenews

Check Also

৮টি রাজনৈতিক দলের নিবন্ধন বাতিল হতে পারে

এম আই মিন্টু- ঢাকা ক্রাইম নিউজঃ নিবন্ধন পেতে আগ্রহী রাজনৈতিক দলের মধ্যে আরো আটটি দল ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *