Breaking News
Home / জেলার সংবাদ / পাঁচ ধাপ এগিয়েছে চট্টগ্রাম বন্দর

পাঁচ ধাপ এগিয়েছে চট্টগ্রাম বন্দর

ঢাকা ক্রাইম নিউজঃ কনটেইনার পরিবহনের সংখ্যার হিসাবে এক বছরের ব্যবধানে পাঁচ ধাপ এগিয়েছে চট্টগ্রাম বন্দর। চট্টগ্রাম বন্দর এখন বিশ্বের ৭১তম অবস্থানে।

২০১৬ সালে কনটেইনার ওঠানো-নামানোর সংখ্যা হিসাব করে এই অবস্থান নির্ধারণ করেছে লন্ডনভিত্তিক শিপিংবিষয়ক বিশ্বের সবচেয়ে পুরোনো সংবাদমাধ্যম ‘লয়েডস লিস্ট’। গত সোমবার বিশ্বের ১০০টি বন্দরের এই তালিকা প্রকাশ করে সংবাদমাধ্যমটি।

এই ক্রমতালিকা শুধু কনটেইনার পরিবহনের সংখ্যার হিসাব করে তৈরি করা হয়েছে, সেবার মান বিচার করা হয়নি। কনটেইনার পরিবহন বাড়ার সঙ্গে নতুন অবকাঠামো তৈরি না হওয়ায় সেবার মানে পিছিয়ে পড়ছে চট্টগ্রাম বন্দর।

কার্যত বিকল্প বন্দর না থাকায় এই বন্দর ছাড়া কনটেইনার পরিবহনের সেবা নেওয়ার বিকল্প মাধ্যমও নেই ব্যবহারকারীদের হাতে।

লয়েডস লিস্টের তালিকা অনুযায়ী, সেরা ১০০ বন্দরের তালিকায় শীর্ষস্থানে চীনের সাংহাই বন্দর। গত বছর এই বন্দর দিয়ে ৩ কোটি ৭১ লাখ কনটেইনার পরিবহন করা হয়।

চীনের ২০টি বন্দর রয়েছে এই তালিকায়। ২০১০ সালে শীর্ষস্থান হারানোর পর সিঙ্গাপুর বন্দর যথারীতি দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে। প্রতিবেশী ভারতের তিনটি এবং পাকিস্তানের করাচি বন্দর স্থান পেয়েছে তালিকায়।

পাকিস্তানের করাচি বন্দর তিন ধাপ এগিয়ে ৭৭তম অবস্থানে উন্নীত হয়েছে। এরপরও করাচির চেয়ে ছয় ধাপ এগিয়ে আছে চট্টগ্রাম বন্দর।

জানতে চাইলে চট্টগ্রাম বন্দরের চেয়ারম্যান রিয়ার অ্যাডমিরাল এম খালেদ ইকবাল গতকাল মঙ্গলবার প্রথম আলোকে বলেন, অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি বাড়ার কারণে বন্দর দিয়ে কনটেইনার পরিবহন বাড়ছে।

এর ফলে এবার পাঁচ ধাপ এগিয়েছে চট্টগ্রাম বন্দর। কনটেইনার পরিবহন বাড়তে থাকায় এখন বন্দরে ৯-১০টি থেকে বাড়িয়ে একসঙ্গে ১১টি জাহাজ জেটিতে ভেড়ানোর ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। পতেঙ্গা কনটেইনার টার্মিনালের কাজও শুরু হচ্ছে, যেখানে একসঙ্গে তিনটি জাহাজ ভেড়ানো যাবে।

লয়েডস লিস্ট বলছে, ২০১৬ সালে চট্টগ্রাম বন্দর দিয়ে ২৩ লাখ ৪৬ হাজার ৯০৯ একক কনটেইনার পরিবহন করা হয়; যা আগের বছরের (২০১৫) চেয়ে ১৫ দশমিক ৯ শতাংশ বেশি। গত বছর প্রকাশিত তালিকায় চট্টগ্রাম বন্দরের অবস্থান ছিল ৭৬তম। নতুন তালিকায় তা ৭১-এ উন্নীত হয়েছে।

গত পাঁচ বছরের তথ্য পর্যালোচনায় দেখা যায়, ২০১২ থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত পাঁচ বছরের ব্যবধানে কনটেইনার পরিবহন বেড়েছে প্রায় ৬৭ শতাংশ। এ হিসাবে গড়ে ১৩ শতাংশ হারে বাড়ছে কনটেইনার পরিবহন।

 বিশ্লেষকেরা বলছেন, বৈদেশিক বাণিজ্য বাড়ায় এই বন্দর দিয়ে কনটেইনার পরিবহনও নিয়মিত বাড়ছে। গত কয়েক বছরে ধারাবাহিকভাবে দেশে শিল্প ও সেবা খাতের প্রবৃদ্ধি বাড়ছে।

শিল্প ও সেবা খাত পণ্য আমদানি ও রপ্তানির ওপর নির্ভরশীল হওয়ায় অনিবার্যভাবে এই বন্দর দিয়ে কনটেইনার পরিবহন বাড়ছে।

তৈরি পোশাকশিল্পের মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএর বন্দর ও জাহাজীকরণবিষয়ক স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান নাসির উদ্দিন চৌধুরী  বলেন, কনটেইনার পরিবহনের সংখ্যায় বন্দর এগিয়ে যাওয়া খুশির খবর।

তবে সেবার মানের সঙ্গে এটি এক করে দেখার সুযোগ নেই। দেশের একমাত্র বন্দর হওয়ায় এই বন্দর দিয়ে সামনেও কনটেইনার পরিবহন আরও বাড়বে। এ জন্য সেবার মান বাড়াতে নতুন অবকাঠামো নির্মাণ করতে হবে। বহির্নোঙরে জাহাজজট কমাতে পদক্ষেপ নিতে হবে।

কনটেইনার পরিবহনের সংখ্যায় সেরা ১০০ বন্দরের তালিকা ২০০৭ সাল থেকে প্রথম প্রকাশ করে ‘কার্গো সিস্টেমস’ অনলাইন পত্রিকা। এরপর অনলাইনভিত্তিক পত্রিকা ‘কনটেইনারাইজেশন ইন্টারন্যাশনাল’ অধিগ্রহণ করে কার্গো সিস্টেমস অনলাইনকে।

২০১২ সালে লয়েডস লিস্ট অধিগ্রহণ করে কনটেইনারাইজেশন ইন্টারন্যাশনালকে। এরপর থেকেই নিয়মিতই এই তালিকা প্রকাশ করে আসছে বর্তমানে অনলাইনভিত্তিক এই সংবাদমাধ্যমটি।

লয়েডস লিস্টের তালিকা অনুযায়ী, ২০১৬ সালে বিশ্বের সেরা ১০০টি বন্দর দিয়ে ৫৫ কোটি ৪৯ লাখ কনটেইনার পরিবহন করা হয়েছে। এর মধ্যে চীনের ২০টি বন্দর দিয়ে পরিবহন করা হয়েছে ৩৬ দশমিক ৫৫ শতাংশ বা ২০ কোটি ২৮ লাখ কনটেইনার।

দেশ হিসাবে এর পরের অবস্থান যুক্তরাষ্ট্রের, ৩ কোটি ৮৩ লাখ কনটেইনার পরিবহন করা হয়েছে দেশটির ৯টি বন্দর দিয়ে। এক কোটির বেশি কনটেইনার পরিবহন করা হয় এমন বন্দরের সংখ্যা ১৪টি।

ওয়ার্ল্ড পোর্ট সোর্স ওয়েব পোর্টাল অনুযায়ী, বিশ্বে বিভিন্ন ধরনের ৪ হাজার ৯৩৬টি বন্দর রয়েছে। তবে কনটেইনার পরিবহন করা হয় এমন বন্দরের সংখ্যা প্রায় ৫০০টি।

About Dhakacrimenews24

Check Also

রোহিঙ্গা গণহত্যার প্রতিবাদে নারায়ণগঞ্জে বিক্ষোভ

জাহিদুর রহমান- ঢাকা ক্রাইম নিউজঃ  রোহিঙ্গা মুসলমানদের উপর গণহত্যা ও অমানবিক নির্যাতনের প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *