Breaking News
Home / লাইফস্টাইল / কমলাপুরে টিকিট প্রত্যাশীদের চাপ বাড়ছে

কমলাপুরে টিকিট প্রত্যাশীদের চাপ বাড়ছে

আবু তালেব-

ঢাকা ক্রাইম নিউজঃ  ঈদের দিন ঘনিয়ে আসার সাথে সাথে টিকিটপ্রত্যাশীদের চাপ বাড়ছে কমলাপুর রেল স্টেশনে।

পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে শনিবার ট্রেনের টিকিট বিক্রির দ্বিতীয় দিনে বিক্রি হয়েছে ২৮ আগস্টের টিকিট।

প্রথম দিনের তুলনায় গতকাল যাত্রীর চাপ ছিল অনেক বেশি।

গত শুক্রবার মধ্যরাত থেকেই অনেক যাত্রী কাউন্টারের সামনে অপেমাণ ছিলেন।

শনিবার সকাল ৮টার আগেই কমলাপুর স্টেশন কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে যায়।
কমলাপুর স্টেশন ম্যানেজার সীতাংশু চক্রবর্তী বলেন, শেষের তিন দিন যাত্রীদের চাপ অন্য দুই দিনের তুলনায় বেশি থাকে। প্রতি বছরই এমন চিত্র দেখা যায়।

ট্রেনে যাতায়াতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করার কারণে স্টেশনে টিকিটপ্রত্যাশীদের সংখ্যা বাড়ছে। তারা অত্যন্ত সুশৃঙ্খলভাবে লাইনে দাঁড়িয়ে ট্রেনের টিকিট কিনতে পারছেন।

তিনি বলেন, কমলাপুর থেকে প্রতিদিন ৩১টি ট্রেনের ২২ হাজার ৪৯৬টি টিকিট বিক্রি করা হচ্ছে।

এর মধ্যে ২৫ শতাংশ অনলাইন, ৫ শতাংশ ভিআইপি, ৫ শতাংশ রেলওয়ে কর্মকর্মতা-কর্মচারীদের জন্য বরাদ্দ।

বাকি ৬৫ শতাংশ টিকিট কাউন্টার থেকে বিক্রি হচ্ছে।
গতকাল কমলাপুর স্টেশনে দেখা গেছে, টিকিট কাউন্টারের সামনে দীর্ঘ সারি। কাউন্টারের সামনে থেকে এ লাইন সিঁড়ি ছাড়িয়ে বাইরে গিয়ে ঠেকেছে। ২৩টি কাউন্টারে টিকিট বিক্রি হচ্ছে।

রাজশাহীগামী ধূমকেতু এক্সপ্রেস ট্রেনের টিকিট কাটতে ভোর থেকে লাইনে দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করছেন একটি সরকারি ব্যাংকের কর্মকর্তা নকীব উদ্দিন।

তিনি বলেন, ট্রেনে খুব ভিড় হয় বলে প্রতিবার বাসেই যাই। কিন্তু এবার বন্যা, রাস্তায় খানাখন্দে অতিরিক্ত যানজট এবং দুর্ঘটনার শঙ্কা থেকে যায়।

তাই এবার ঈদে পরিবারসহ ট্রেনে বাড়ি ফেরার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। তিনি বলেন, লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা অবস্থায় সবাই বলাবলি করছে এবার স্টেশনের কাউন্টারগুলোতে টিকিটপ্রত্যাশী মানুষের উপস্থিতি অন্যবারের তুলনায় বেশি।

বন্যা-বৃষ্টির কারণে সড়কের বেহাল দশার বিষয়টি মাথায় রেখে সবাই হয়তো ট্রেনের টিকিটে আগ্রহী।

যাত্রীরা মনে করছেন, কোরবানির ঈদে ঘরমুখো মানুষের পাশাপাশি থাকবে কোরবানির পশুবোঝাই ট্রাকের চাপ।

ফলে সড়কপথে অতিরিক্ত যানজট থাকবে। তাই ট্রেনেই এবার তুলনামূলক স্বস্তির যাত্রা হবে।

রোববার বিক্রি হবে ২৯ আগস্টের টিকিট।

ক্রমান্বয়ে যাত্রীরা ২১ ও ২২ আগস্ট যথাক্রমে ৩০ ও ৩১ আগস্টের টিকিট কাটতে পারবেন।

ফিরতি টিকিট,  ঈদ শেষে কর্মস্থলে ফেরা মানুষের জন্য অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু হবে আগামী ২৫ আগস্ট থেকে।

ঈদফেরত যাত্রীদের জন্য রাজশাহী, খুলনা, রংপুর, দিনাজপুর ও লালমনিরহাট স্টেশন থেকে বিশেষ ব্যবস্থাপনায় ওই দিন সকাল ৮টা থেকে টিকিট বিক্রি হবে।

২৫ আগস্ট পাওয়া যাবে ৩ সেপ্টেম্বরের টিকিট।

এরপর ক্রমান্বয়ে ২৬, ২৭, ২৮ ও ২৯ আগস্ট পাওয়া যাবে যথাক্রমে ৪, ৫, ৬ ও ৭ সেপ্টেম্বরের ফিরতি টিকিট।

ঈদযাত্রায় সাত জোড়া বিশেষ ট্রেন : ঈদকে সামনে রেখে এবার যাত্রীদের সুবিধার্থে সাত জোড়া বিশেষ ট্রেন পরিচালনা করা হবে।

বিশেষ ট্রেনগুলো ঈদের আগের চার দিন এবং ঈদের পরে সাত দিন চলাচল করবে।

টিকিট কালোবাজারি প্রতিরোধে ঢাকা, ঢাকা ক্যান্টনমেন্ট, বিমানবন্দর, জয়দেবপুর, চট্টগ্রাম, ময়মনসিংহ, সিলেট, রাজশাহী, খুলনাসহ সব বড় স্টেশনে জিআরপি, আরএনবি, বিজিবি, স্থানীয় পুলিশ ও র‌্যাবের সহযোগিতায় সার্বণিক মনিটরিং করা হচ্ছে।

তা ছাড়া জেলা প্রশাসকদের সহায়তায় ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হবে।

যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচলের সুবিধার্থে ঈদের তিন দিন আগে থেকে কনটেইনার ও জ্বালানি তেলবাহী ট্রেন ছাড়া কোনো পণ্যবাহী ট্রেন চলাচল করবে না।

তবে ঈদের দিন বিশেষ ব্যবস্থাপনায় কিছু মেইল এক্সপ্রেস ট্রেন চলাচলের ব্যবস্থা করা হবে।

অন্য দিকে আগামী ১ থেকে ৪ সেপ্টেম্বর মৈত্রী এক্সপ্রেস চলাচল করবে না।
টিকিটধারী যাত্রীদের ভ্রমণের সুবিধার্থে জয়দেবপুর ও বিমানবন্দর স্টেশন থেকে ঢাকাগামী আন্তঃজোনাল আন্তঃনগর ট্রেনে কোনো আসনবিহীন যাত্রী চলাচল করতে পারবেন না।

সুষ্ঠুভাবে ও নিরাপদে ট্রেন চলাচলের সুবিধার্থে ট্রেন পরিচালনায় সম্পৃক্ত রেলওয়ে কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের ২৮ আগস্ট থেকে ১ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সব ধরনের ছুটি বাতিল করা হয়েছে।

About Dhakacrimenews24

Check Also

হাসপাতালে কাটল যাদের ঈদ

রুবাইয়া রুমি- ঢাকা ক্রাইম নিউজঃ মুক্তামণির ঈদ ভালোই কেটেছে বলে জানিয়েছেন মুক্তামণির বাবা ইব্রাহিম হোসেন। ...

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *